টি-ট্রি অয়েলের ব্যবহার

আজকাল রূপচর্চায় অনেকেই টি-ট্রি অয়েলের(অ্যাসেনশিয়াল অয়েল) ওপর নির্ভর করেন। তবে শুধু সৌন্দর্য চর্চাই নয়, টি-ট্রি অয়েলের ব্যবহার করা যায় আরও অনেক কাজে। কী কী? জেনে নিন:

• ত্বক পরিষ্কার করে
• এটি ন্যাচারাল অ্যান্টিসেপ্টিক। ফলে ত্বকের ব্রণের ও যেকোনো ধরনের ইনফেকশন সহজেই সারিয়ে তোলে।
• ত্বকের গলায়, ঘাড়ে বা পায়ে বসে যাওয়া কালো দাগ ‍দূর করে।

• পেটের বা পায়ের ফাঁটা দাগ দূর করতেও ব্যবহার করা যায়

• সামনে শীত আসছে, খুশকি তাড়াতেও কার্যকর। শ্যাম্পুর সঙ্গে মাত্র কয়েক ফোঁটা টি-ট্রি অয়েল দিয়ে দিন

• ঠাণ্ডায় গলা ব্যথা বা নাক বন্ধ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে গরম পানিতে কয়েক ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে ভাপ নিন।

• মাউথওয়াশ হিসেবে এক গ্লাস পানিতে সামান্য টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে ব্যবহার করুন

• ঘরের মেঝে, বাথরুম ও ফার্নিচার পরিষ্কার করার ডিটারজেন্টের সঙ্গেও দু-এক ফোঁটা মিশিয়ে ব্যবহার করা যায়।

• সারাদিনের ক্লান্তি দূর করে সতেজ থাকতে গোসলের পানিতে কয়েক ফোঁটা…

শপিংমল গুলোতে কসমেটকস কর্নারে টি-ট্রি অয়েল পাওয়া যায়। দেশের অনলাইন শপগুলো থেকেও পেতে পারেন ভালো কোম্পানির টি-ট্রি অয়েল।

Add Comment