লোকটা আমার প্যান্টের ভিতরে হাত ঢোকানোর চেষ্টা করেন

ভারতে বিতর্কের ঝড় তুলেছে #MeToo অভিযান। অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের পর একে একে মুখ খুলতে শুরু করেছেন একাধিক অভিনেত্রী। এবার এই তালিকায় নাম লেখালেন অভিনেতারাও। যৌন হেনস্তার অভিযোগে মুখ খুললেন অভিনেতা সাকিব সালিম। প্রকাশ্যে আনলেন একুশ বছর বয়সে যখন বলিউডে পা রেখেছিলেন, তখনকার একটি ঘটনা।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, #MeToo তালিকায় নাম উঠেছে যাদের, তাদের সঙ্গে আর কাজ করবেন না বলে ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন বলিউডের নারী পরিচালকদের ব্রিগেড। এই প্রমীলা বাহিনীতে রয়েছেন কঙ্কণা সেনশর্মা, জোয়া আখতার, নন্দিতা দাস, মেঘনা গুলজার, গৌরী শিন্ডে, কিরণ রাও, রিমা কাগতি, অলঙ্কৃতা শ্রীবাস্তব, নিত্যা মেহরা, রুচি নারায়ণ এবং সোনালি বোসের মতো বিখ্যাত সব নাম। মি-টু বিতর্ক কেবল বলিউডেই প্রভাব ফেলেনি। তা মাথাচাড়া দিয়েছে খ্যাতনামা সংবাদমাধ্যমের গোষ্ঠী ও ভারতীয় রাজনীতিতেও। নামী সংবাদমাধ্যমের গোষ্ঠী থেকে ইতিমধ্যেই ইস্তফা দিয়েছেন বহু সাংবাদিক। বুধবার ইস্তফা দিলেন দেশটির পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর।

এমত পরিস্থিতিতে তার জীবনের এক কালো সত্য প্রকাশ্যে আনলেন অভিনেতা সাকিব সালিম। অভিনেতা জানান, একুশ বছর বয়সে যখন তিনি বলিউডে সবেমাত্র ক্যারিয়ার শুরু করেছেন, তখন খুব পরিচিত একজন তাকেও যৌন হেনস্তা করেছে।

অভিনেতা বলেন, ‘আমি তখন বলিউডে একদম নতুন। মাত্র ২১ বছর বয়স আমার। তখনই যৌন হেনস্তার মুখে পড়তে হয় আমাকে। লোকটা আমার প্যান্টের ভিতরে হাত ঢোকানোর চেষ্টা করে। আমি ভয় পেয়ে যাই এবং সঙ্গে সঙ্গে সেখান থেকে চলে আসি।’ যদিও ওই ব্যক্তির নাম প্রকাশ্যে আনেননি সাকিব। কেবল জানান, বলিউডে তার অনেক সমকামী বন্ধু রয়েছে।

Add Comment