সমালোচিত বিবাহিত ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগী লাবণী

২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা নিয়ে কম সমালোচনা হয়নি। বিয়ের তথ্য গোপন করার অভিযোগে বাদ পড়েছিলেন জান্নাতুল ফেরদৌস এভ্রিল। গত বছরের মতো এবারও একই রকমের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল ২০১৮ সালের এ প্রতিযোগিতায়।

এবারের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ হয়েছেন বরিশালের পিরোজপুরের জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। ঐশী বিজয়ী হলেও এবার ঐশীর চেয়েও আলোচনায় এগিয়ে আছেন আফরিন সুলতানা লাবণী।

৩০ সেপ্টেম্বর মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফিনাল হওয়ার পর জানা গেল, প্রতিযোগিতা ‘বেস্ট বিহেভিয়র’ অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত আফরিন সুলতানা লাবণীও নিজের বিয়ের তথ্য গোপন করেছেন।

২০১৮ সালের এ সুন্দরী প্রতিযোগিতা অডিশন রাউন্ডের সময় অনুষ্ঠানটির আয়োজক প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের কর্ণধার স্বপন চৌধুরী বলেন, ‘গতবার মিথ্যা তথ্য দেওয়ার কারণে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিল। এবার কেউ মিথ্যা তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করলে আমরা ১০ লক্ষ টাকা জরিমানার বিধান রেখেছি। পাশাপাশি আমাদের টিম এবং বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে তথ্য যাচাই বাছাই করছি।’

লাবণীর বিয়ে সম্পর্কে তার সাবেক স্বামী আতাউর রহমান আতিক জানান, ২০১৪ সাল লাবণীকে বিয়ে করেন তিনি। দুই বছরের মাথায় ২০১৬ সালে তাদের তালাক হয়। তালাকের পর আতিক লাবণীর বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ এনে মামলাও করেন। সেই মামালার এখনো নিষ্পত্তি হয়নি।

মুঠোফোনে মেয়ের বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লাবণীর বাবা আবদুল করিমও।

Add Comment