1. admin@binodonbarta24.com : admin :
লতা মঙ্গেশকর আর নেই! - বিনোদন বার্তা ২৪।
শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন
শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন

লতা মঙ্গেশকর আর নেই!

বিনোদন বার্তা ২৪ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ১৬৯

Tags: ,

 

প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকর আর নেই।রোববার (০৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল সোয়া ৮টার দিকে ভারতের মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর।

শনিবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে হঠাৎ করেই লতা মঙ্গেশকরের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে।এর পর তাঁকে ভেন্টিলেশনে নেওয়া হয়। সেখান থেকে আর ফেরানো যায়নি তাকে। জানুয়ারি মাসের ১১ তারিখ থেকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।প্রায় চার সপ্তাহ ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন লতা মঙ্গেশকর।  সেখানে তার অবস্থার উন্নতি হচ্ছিল। বন্ধ রাখা হয়েছিল লাইফ সাপোর্ট। আশার আলো দেখছিলেন চিকিৎসকরাও।

তবে শনিবার সকালে শারীরিক অবস্থার আবারও অবনতি হওয়ায় লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।চিকিৎসকরা তখন জানিয়েছিলেন, লতা মঙ্গেশকরের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনক। এরপর বোন লতাকে দেখতে হাসপাতালে যান আরেক কিংবদন্তি আশা ভোঁসলে ও পরিবারের বাকি সদস্যরা।

ভারতের নাইটেঙ্গেল হিসেবে পরিচিত লতা মঙ্গেশকর। ঈর্ষণীয় ক্যারিয়ারে ভূষিত হয়েছেন ভারতরত্ন সম্মানে।  পেয়েছেন পদ্মভূষণ, পদ্মবিভূষণ, দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার।  প্লে-ব্যাকের জন্য পেয়েছেন একাধিক জাতীয় পুরস্কার।

১৯২৯ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর ভারতের ইন্দোরে মারাঠি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন লতা মঙ্গেশকর। তার বাবা পণ্ডিত দীনানাথ মঙ্গেশকর ছিলেন শাস্ত্রীয়সংগীত শিল্পী ও মঞ্চ অভিনেতা। মা শেবান্তি ছিলেন গৃহিণী। তার ছোট বোন আশা ভোঁসলে, ঊষা মঙ্গেশকর ও মীনা মঙ্গেশকর। একমাত্র ভাই হৃদয়নাথ মঙ্গেশকর।

১৯৪২ সালে বাবা দীনানাথ মঙ্গেশকর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে ১৩ বছর বয়সী লতাকে পরিবারের হাল ধরতে হয়। এজন্য গান গাওয়া ও অভিনয়ের পথে পা বাড়ান তিনি।
লতা মঙ্গেশকর প্রথম গান গেয়েছিলেন মারাঠি ছবি ‘কিতি হাসাল’-এর (১৯৪২) জন্য। তবে চূড়ান্ত সম্পাদনায় বাদ দেওয়া হয় সেই গানটি। পরবর্তীকালে ‘মজবুর’ (১৯৪৮) ছবিতে প্রথম বড় সুযোগ পান। এ ছবিতে ‘দিল মেরা তোড়া’ শিরোনামের একটি গান গেয়েছিলেন তিনি। তবে তার প্রথম তুমুল জনপ্রিয় গান হলো ‘মহল’ (১৯৪৯) ছবির ‘আয়েগা আনেওয়ালা’। এতে অভিনয় করেন কিংবদন্তি অভিনেত্রী মধুবালা।

১৯৭৪ সালে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক গানের শিল্পী হিসেবে গিনেস বুকে স্থান পান লতা। নব্বই দশকে মোজার্ট অব মাদ্রাজ খ্যাত এ আর রাহমান ও প্রয়াত গজল সম্রাট জগজিৎ সিয়ের সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। পরিচালক যশ চোপড়ার প্রায় সব ছবির গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি।

 

বিনোদন বার্তা২৪। 

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 Binodonbarta24.com
Theme customize By Theme Park BD